রূপালী ব্যাংক নেবে ৭৩৬ অফিসার

৭৩৬ অফিসার চেয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে রূপালী ব্যাংক লিমিটেড। এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে আবেদনপ্রক্রিয়া। আবেদন করতে হবে অনলাইনে। শেষ তারিখ ২৩ আগস্ট। বিস্তারিত জানাচ্ছেন ফরহাদ হোসেন

রূপালী ব্যাংক নেবে ৭৩৬ অফিসার

মডেল : রংতুলি ছবি : তারেক আজিজ নিশক

ন্যূনতম দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমমানের গ্রেড পয়েন্টসহ স্নাতকোত্তর অথবা চার বছরমেয়াদি স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রি থাকলেই আবেদন করা যাবে। কোনো তৃতীয় বিভাগ, শ্রেণি বা সমমানের গ্রেড থাকা চলবে না। থাকতে হবে কম্পিউটার বিষয়ে জানাশোনা। গ্রেডিং পয়েন্টে প্রকাশিত ফলাফলের ক্ষেত্রে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৩.০০ বা তার বেশি প্রথম বিভাগ, জিপিএ ২.০০ থেকে বেশি ৩.০০-এর কম দ্বিতীয় এবং জিপিএ ১.০০ থেকে বেশি ২.০০-এর কম হলে ধরা হবে তৃতীয় বিভাগ। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে ৪ পয়েন্ট স্কেলে সিজিপিএ ৩.০০ বা বেশি প্রথম, ২.২৫ বা তার বেশি কিন্তু ৩.০০-এর কম দ্বিতীয়, ১.৬৫ বা তার বেশি কিন্তু ২.২৫-এর কম হলে ধরা হবে তৃতীয় বিভাগ বা শ্রেণি। ৫ পয়েন্ট স্কেলে ৩.৭৫ বা তার বেশি প্রথম, ২.৮১৩ বা তার বেশি কিন্তু ৩.৭৫-এর কম দ্বিতীয় এবং ২.০৬৩ বা তার বেশি কিন্তু ২.৮১৩-এর কম হলে ধরা হবে তৃতীয় বিভাগ বা শ্রেণি। ১ আগস্ট ২০১৬ তারিখে বয়সসীমা ৩০ বছর। তবে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা ৩২ বছর। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিটি পাওয়া যাবে oa.query@bb.org.bd লিংকে।

আবেদন যেভাবে

শুরু হয়ে গেছে আবেদন প্রক্রিয়া। চলবে ২৩ আগস্ট পর্যন্ত। বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটের (erecruitment.bb.org.bd) মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। আবেদন করার নিয়ম ও শর্ত পাওয়া যাবে ওয়েবসাইটে। আবেদনের সময় আপলোড করতে হবে ৬০০ বাই ৬০০ পিক্সেল এবং সর্বোচ্চ ৮০ কিলোবাইটের ছবি এবং ৩০০ বাই ৮০ পিক্সেল এবং সর্বোচ্চ ৬০ কিলোবাইটের স্বাক্ষরের স্ক্যান কপি। আবেদন শুরুর আগেই স্ক্যান কপি সঙ্গে রাখতে হবে। প্রাথমিকভাবে কোনো কাগজপত্র লাগবে না। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে জমা দিতে হবে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র। ফরমে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের প্রকাশিত বিভিন্ন পরীক্ষার ফলাফলের তারিখ উল্লেখ করতে হবে। চাকরিরত প্রার্থীদের আবেদন করতে হবে কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে। অনলাইনে আবেদন করার পর ট্র্যাকিং নম্বরযুক্ত ফরমটি সংরক্ষণ করতে হবে। প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইট থেকে। আবেদনের সময় কোনো সমস্যায় পড়লে ইমেইল করা যাবে oa.query@bb.org.bd ঠিকানায়।

পরীক্ষার ধরন

ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্যসচিব এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক লাইলা বিলকিস আরা জানান, আবেদনপত্র প্রাথমিক যাচাই-বাছাইয়ের যোগ্যদের ডাকা হবে এমসিকিউ পরীক্ষায়। উত্তীর্ণদের ডাক পড়বে লিখিত পরীক্ষার জন্য। সবশেষে ভাইভা বা মৌখিক পরীক্ষা। সাধারণত পদের বিপরীতে তিন গুণ প্রার্থী ডাকা হয় ভাইভায়। বিভিন্ন ব্যাংকের বিগত বছরের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ঘেঁটে দেখা যায়, বিভিন্ন সরকারি ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষায় একই ধরনের প্রশ্ন করা হয়। সাধারণত এমসিকিউ পরীক্ষায় ১০০ ও লিখিত পরীক্ষায় বরাদ্দ থাকে ২০০ নম্বর। এমসিকিউ অংশে ১০০ নম্বরের মধ্যে বাংলায় ২৫, ইংরেজিতে ২৫, গণিতে ২৫ এবং সাধারণ জ্ঞানে ২৫ নম্বর বরাদ্দ থাকে। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য কাটা যায় ০.২৫ নম্বর। লিখিত পরীক্ষায় ২০০ নম্বরের মধ্যে বাংলা, ইংরেজি ও গণিতে ৫০ নম্বর করে থাকে। বাকি ৫০ নম্বর বরাদ্দ থাকে বাংলা থেকে ইংরেজি ও ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদে। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের ডাকা হয় ২৫ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষায়। তবে কর্তৃপক্ষ চাইলে নম্বর বণ্টন ও পরীক্ষার ধরনে পরিবর্তন আনতে পারে।

এবার প্রস্তুতি

বাজারে বিভিন্ন সরকারি ব্যাংক নিয়োগ গাইড পাওয়া যায়। ব্যাংক জব সল্যুশন বইগুলোও কাজের। এসব গাইডে বিগত বছরের প্রশ্ন দেওয়া থাকে। ২০১৪ সালে রূপালী ব্যাংকে অফিসার পদে নিয়োগ পাওয়া বেশ কয়েকজন জানান, সরকারি ব্যাংকগুলোতে অফিসার পদের জন্য প্রায় একই ধরনের প্রশ্ন করা হয়। রূপালী ব্যাংকসহ অন্যান্য সরকারি ব্যাংক নিয়োগ পরীক্ষার বিগত বছরের প্রশ্ন দেখলে ভালো ধারণা পাওয়া যাবে প্রস্তুতির বিষয়ে। মাধ্যমিক শ্রেণির বাংলা, গণিত ও ইংরেজি বইও খুব কাজে দেবে।

বাংলা

মতিঝিলের রূপালী সদন করপোরেট শাখার কর্মকর্তা আনিসুর রহমান জানান, এমসিকিউ পরীক্ষায় ব্যাকরণ অংশে প্রবাদ প্রবচন, উপসর্গ, সন্ধি বিচ্ছেদ, সমার্থক শব্দ, পারিভাষিক শব্দ, বাগধারা, পদ, সমোচ্চারিত শব্দ, এক কথায় প্রকাশ, বিপরীত শব্দ, শুদ্ধ বানান, বচন, সমাস, কারক, বিভক্তিসহ নানা বিষয়ে প্রশ্ন থাকে। সাহিত্য অংশে বিভিন্ন কবি-সাহিত্যিকদের নাম-পরিচিতি, জন্ম-মৃত্যুকাল, বিভিন্ন গ্রন্থের নাম, বইয়ের বিভিন্ন চরিত্রের নাম, বিখ্যাত পঙিক্তমালাসহ সাহিত্যের অন্যান্য অংশ থেকে প্রশ্ন আসে। সাম্প্রতিক গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু নিয়ে রচনা এবং বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ থাকে লিখিত পরীক্ষায়। বোর্ড প্রকাশিত নবম-দশম শ্রেণির বাংলা ব্যাকরণ, ভাষা ও সাহিত্য এবং একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির বাংলা সাহিত্যের বই প্রস্তুতিতে সহায়ক হবে।

ইংরেজি

রূপালী ব্যাংক প্রধান কার্যালয়ের কমপ্লায়েন্স শাখায় কর্মরত অফিসার আজরব উদ্দিন খন্দকার জানান, গ্রামার অংশে এমসিকিউ পরীক্ষায় Fill in the banks, Phrases and idioms, Synonyms, Antonyms, Transformation of sentence, Right forms of verb, Appropriate word, Appropriate preposition, Correctly spelt word, Opposite meaning থেকে বেশি প্রশ্ন আসে। রচনামূলক অংশে সাধারণত জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে ইংরেজি রচনা আসতে পারে। বাংলা থেকে ইংরেজিতে অনুবাদও থাকে। ইংরেজিতে বেসিক ভালো হলে সহজেই বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর করা যায়। বাজারে বিভিন্ন প্রকাশনীর গ্রামার বই পাওয়া যায়। সেসব বই ছাড়াও নবম-দশম শ্রেণির পাঠ্য ইংলিশ গ্রামার বইটি বেশ কাজের।

গণিত

রূপালী ব্যাংকের মিটফোর্ড শাখার কর্মকর্তা সাবরিনা আক্তার জানান, পাটিগণিত ও বীজগণিত দুই অংশ থেকেই প্রশ্ন করা হয় এমসিকিউ ও রচনামূলক পরীক্ষায়। সব প্রশ্ন করা হয় ইংরেজিতে। পাটিগণিতে শতকরা, সুদকষা, অনুপাত-সমানুপাত, লসাগু, গসাগুসহ নানা বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়। বীজগণিতে থাকে উত্পাদক নির্ণয়, সমীকরণ, মূলদ, অমূলদ, সূচক ও লগারিদমের সূত্রের প্রয়োগ বিষয়ে। গাণিতিক যুক্তি, শতকরা, লাভ-ক্ষতি, সুদকষা ও ঐক্যিক নিয়ম থেকে এমসিকিউ ও রচনামূলকে বেশি প্রশ্ন থাকে। জ্যামিতি, পরিমিতি থেকেও প্রশ্ন আসে। ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে নবম-দশম শ্রেণির পাটিগণিত, বীজগণিত ও জ্যামিতি বই পড়তে হবে। জিআরই ম্যাথ, সাইফুরের ম্যাথ বইগুলোর শর্টকাট টেকনিক প্রস্তুতিতে কাজে দেবে।

সাধারণ জ্ঞান

সাধারণত কেবল এমসিকিউ পরীক্ষায় প্রশ্ন করা হয় সাধারণ জ্ঞান থেকে। রূপালী ব্যাংকের শ্যামবাজার শাখার কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান, প্রশ্ন আসে বাংলাদেশ প্রসঙ্গ ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি থেকে। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, ভাষা আন্দোলন, ভৌগোলিক অবস্থা, ঐতিহ্য, কৃষ্টি, সভ্যতার ইতিহাস, শিল্প ও বাণিজ্য, অর্থনীতি, কৃষি, জিডিপি, অর্থনৈতিক সমীক্ষা, সরকার, রাজনীতি ও বিচার ব্যবস্থাসহ সাম্প্রতিক ঘটনাবলি থেকে প্রশ্ন করা হয় বাংলাদেশ অংশে। বিশ্ব রাজনীতি, বিভিন্ন সংস্থা ও জোট, বিভিন্ন দেশ, মুদ্রা, আন্তর্জাতিক আইন, বিচারব্যবস্থা, দিবস, সন্মেলন, পুরস্কার, সম্মাননা, খেলাধুলাসহ সাম্প্রতিক বিশ্বের নানা ঘটনাপঞ্জি থেকে প্রশ্ন আসে আন্তর্জাতিক বিষয়াবলিতে। রূপালী ব্যাংকের মগবাজার শাখার কর্মকর্তা সাবিনা আক্তার জানান, বাজারে নানা প্রকাশনীর সাধারণ জ্ঞানের বই পাওয়া যায়। প্রস্তুতির জন্য দু-তিনটি বই হাতের কাছে রাখতে হবে। নিয়মিত চোখ রাখতে হবে বিভিন্ন পত্রপত্রিকা, সাধারণ জ্ঞান বিষয়ক মাসিক সাময়িকী ও নিউজভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে।

 

নিয়োগ, প্রশিক্ষণ ও বেতন-ভাতা

রূপালী ব্যাংক প্রধান কার্যালয়ের মানবসম্পদ ও প্রশাসন বিভাগের মহাব্যবস্থাপক আবদুল মজিদ শেখ জানান, ‘নিয়োগের জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের তালিকা তৈরি করে দেবে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি। সেই ভিত্তিতে আমরা নির্বাচিতদের নিয়োগ দেব প্রধান কার্যালয়সহ বিভিন্ন শাখায়। রূপালী ব্যাংক প্রশিক্ষণ একাডেমির মাধ্যমে নির্বাচিতদের দেওয়া হবে বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ। ২০১৫ সালের জাতীয় বেতন স্কেল অনুসারে ১৬০০০-৩৮৬৪০ টাকা কাঠামোতে বেতন ও অন্যান্য আর্থিক সুবিধা পাবেন অফিসাররা।’

– See more at: http://www.kalerkantho.com/feature/chakriache/2016/08/10/391524#sthash.kBnZ8rXD.dpuf

You may also like...